ধর্ম এবং ধর্ম মত বা পথ এর মধ্যে পার্থক্য কোথায় ? বাস্তবিক পক্ষে পৃথিবীতে প্রচলিত ধর্ম কয়টি বা কি কি ?

ধর্ম এবং ধর্ম মত বা পথ এর মধ্যে পার্থক্য কোথায় ? বাস্তবিক পক্ষে পৃথিবীতে প্রচলিত ধর্ম কয়টি বা কি কি ?

সমগ্র বিশ্বে মানুষের জন্য প্রচলিত ধর্ম একটি । তাকে শাশ্বত বা সনাতন বলা যেতে পারে । প্রতিটি সৃষ্টির সঙ্গেই তার ধর্ম অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত থাকে তা না হলে সৃষ্টির উপযােগিতা থাকে না । প্রকৃতি থেকে জলজ প্রাণী , স্থলজ প্রাণী এবং বৃক্ষ – লতাদি সৃষ্টি হয়ে পৃথিবী যখন মনুষ্য বসবাসের যােগ্য হয়েছে তখনই মানুষ সৃষ্টি হয়েছে । জলজ , স্থলজ এবং বৃক্ষাদির ধর্মের মতােই মানুষেরও ধর্ম নির্দিষ্ট হয়েই মানুষ সৃষ্টি হয়েছে । সনাতনের অধীনে মানুষের যে ধর্ম তার নাম মানব ধর্ম । মানব ধর্মের অধীনেই পৃথিবীর তাবৎ মানবকুল বসবাস করছে । সুতরাং পৃথিবীতে প্রচলিত ধর্ম একটি , তা হলাে সনাতন ধর্ম । ধর্ম এবং মতের পার্থক্য কি – এ কথার উত্তরে বলতে হয় যে ধর্ম একটি কিন্তু মত ভিন্ন ভিন্ন । মানুষের মন বিচিত্র । তার কামনা বাসন বিভিন্ন । তার দৃষ্টিতে ভিন্নতা আছে , চিন্তায় ভিন্নতা আছে । পৃথিবীকে ঈশ্বর সাজিয়েছেন তারই আনন্দে এবং প্রকৃতির যে সৌন্দর্য আমরা উপভােগ করছি তা সেই ঈশ্বরেরই সৌন্দর্যের প্রতিফলন । প্রকৃতিতে সৃষ্ট সকল বস্তুই আমাদের কাছে সুন্দর মনে হয় না । তার কারণ কি ? এর কারণ আমাদের দৃষ্টির এবং সৌন্দর্যানুভূতির ভিন্নতা । তদ্রুপ সাধনার ক্ষেত্রেও আমাদের চিন্তার ভিন্নতা । প্রকাশিত । কেউ সাকারে বিশ্বাসী , কারুর নিরাকারে বিশ্বাস , কারুর সাকার নিরাকার কোনটাতেই বিশ্বাস নেই । এরূপ নানাভাবেই মানুষ ঈশ্বরকে চিন্তা করেন । এসব চিন্তার ফসল হলাে ভিন্ন ভিন্ন সাধনার মত ও পথ । এসব মত বা পথের অনুসারীরা কেউ মানবধর্ম থেকে বিচ্যুত নয় । শুধুমাত্র সাধনার ভিন্নতার জন্য ভিন্ন নাম । ভিন্ন মত বা পথের অনুসারীদের আচার আচরণেরও ভিন্নতা আছে , খাদ্যাখাদ্য বিচারেও ঐরূপ ভিন্নতা লক্ষণীয় । তাই দেখা যাচ্ছে যে , ধর্ম একটিই কিন্তু মত বা পথ ভিন্ন – যেমন মানবধর্ম । হিন্দু , বৌদ্ধ , ইসলাম খ্রিষ্টান , জৈন , পারসীক ইত্যাদি হলাে সাধনার মত বা পথ ।

Leave a Reply