বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম – অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম – অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

অনলাইন জগতে  টাকা লেনদেনের সবথেকে  জনপ্রিয় এবং  সহজ মাধ্যম হচ্ছে বিকাশ |বিকাশ একাউন্টের মাধ্যমে আপনি বাংলাদেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তের যেকোন সময়ে খুব সহজেই প্রেমেন্ট করতে পারবেন |  বিকাশ দিয়ে পেমেন্ট করতে হলে আপনার সর্বপ্রথম একটি বিকাশ একাউন্ট খোলার দরকার হবে |  বিকাশ একাউন্ট খোলার মাধ্যমে আপনি সব ধরনের পেমেন্ট করতে পারবেন এমনকি নিজের মোবাইল ফোনে  ফ্লাক্সি লোড করতে পারবেন |   এই পোস্টটিতে আপনি জানতে পারবেন বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম এবং ধাপে ধাপে অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে | 

বিকাশ অ্যাপস ডাউনলোড – Bkash apps ডাউনলোড করুন

ভিডিও ডাউনলোড অ্যাপস – ভিডিও ডাউনলোড করার অ্যাপস

মেয়েদের ছবি ডাউনলোড- সুন্দরী মেয়েদের ইমেজ ডাউনলোড

বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র / ডকুমেন্টস

একাউন্ট খোলার জন্য আপনার কিছু ডকুমেন্টস এর দরকার হবে |  এর ভিতরে সবথেকে বেশি ব্যবহৃত ডকুমেন্টস হলো আপনার এনআইডি কার্ড বা  ন্যাশনাল আইডেন্টিটি কার্ড |  আপনার পাসপোর্ট সাইজের তিন কপি ছবি লাগবে |  সব সময় ব্যবহৃত হয় এমন একটি ফোন নাম্বার দরকার হবে | সাধারণত এই তিনটি ডকুমেন্টস থাকলে আপনি খুব সহজেই বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবে |  এছাড়াও এই  ডকুমেন্টস  গুলোর বিকল্প হিসেবে  আরো অনেক কাগজপত্র রয়েছে যেগুলো দিয়ে আপনি বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন |  সেই সম্পর্কে  নিচে জানতে পারবেন |  

বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য সাধারণ ডকুমেন্টস

  •  ন্যাশনাল আইডেন্টিটি কার্ড (NID)/ ভোটার আইডি কার্ড | 
  • পাসপোর্ট সাইজের তিন কপি ছবি  ছবি |
  • মোবাইল নাম্বার | 

 সাধারণত এই তিনটি জন্য ডকুমেন্টস থাকলে আপনি একটি বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন |  এই তিনটি ডকুমেন্টস নিয়ে আপনি একটি এজেন্ট এর সাথে যোগাযোগ করুন তাহলে সে আপনাকে একাউন্ট খুলতে সাহায্য করবে | সর্বোচ্চ 24 ঘন্টার ভিতরে আপনার একাউন্ট একটিভ হয়ে যাবে |  মনে রাখবেন বিকাশ একাউন্ট খোলা সম্পূর্ণ  ফ্রী কোন টাকা দেবার দরকার নেই | 

বিকাশ একাউন্ট খোলার বিকল্প ডকুমেন্ট

 উপরে যে তিনটি সাধারণ রকমের কথা উল্লেখ করা হয়েছে এই গুলো যদি আপনার কাছে না থাকে তাহলে আপনি নিজে উল্লেখিত  বিকল্প  ডকুমেন্টস দিয়ে আপনার বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন | 

  • বাণিজ্য লাইসেন্স (Trade License ) 
  • ভ্যাট নিবন্ধকরণ শংসাপত্র ( VAT Registration Certificate)
  •  ই-টিআইএন শংসাপত্র (e-TIN Certificate )/ 
  • ব্যাংক সলভেন্সি শংসাপত্র  (Updated Bank Solvency Certificate )
  • ক্লায়েন্ট তালিকা ( Client List.) 
  • অভিজ্ঞতা শংসাপত্র (Experience Certificate) 

উপরে উল্লেখিত ডকুমেন্টস গুলো নিয়ে আপনি যদি কোন এজেন্ট এর সাথে যোগাযোগ করেন তাহলে আপনাকে একটি বিকাশ একাউন্ট খুলে দেওয়া হবে | সর্বোচ্চ 24 ঘন্টার ভিতরে বিকাশ একাউন্ট একটিভ করা হবে | এইখানে বিকল্প কিছু ডকুমেন্টস এর কথা উল্লেখ করা হয়েছে এগুলো সাধারণত বিজনেস যারা করে তাদের জন্য এই ডকুমেন্টসগুলো দরকার হবে | একজন সাধারণ ব্যক্তি হলে আপনাকে এই ডকুমেন্টস দেখানোর দরকার নেই | আপনি সাধারণ ডকুমেন্টসগুলো নিয়ে কোন  এজেন্ট এর সাথে যোগাযোগ করুন |

অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খোলার সব থেকে নিরাপদ এবং সময় সাশ্রয় |  আমি আপনাকে অনুরোধ করবো আপনি অনলাইনে আপনার বিকাশ একাউন্ট খুলুন তাহলে আপনি অনেক সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন সুবিধাগুলো কি কি সেই বিষয়ে আপনি পড়ে আসতে পারেন | আপনি যদি অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন তাহলে আপনার  বিকাশ অ্যাপস ডাউনলোড করা  প্রয়োজন হবে |  নিচে বিকাশ এপস ডাউনলোড এর আপনি একটি লিঙ্ক পেয়ে যাবেন এই লিঙ্ক থেকে আপনি যদি বিকাশ একাউন্ট খুলেন তাহলে আপনি শুরু থেকে 50 টাকা কমিশন পাবেন | 

অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি

  • শুরুতে আপনি উপরে দেওয়া লিংকে থেকে বিকাশ অ্যাপস টি ডাউনলোড করুন |  ডাউনলোড করার পরে আপনি অ্যাপস থেকে ইন্সটল করুন |  ইন্সটল করার পরে অ্যাপস টি কে ওপেন করুন |  ওপেন করার পরে আপনার সামনে নিচের চিত্রের মত কিছু অপশন আসবে |   আপনার এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোনে এই অপশনটি মোট তিনবার আসার সম্ভাবনা রয়েছে |  প্রত্যেকবারের আপনি এলাও ALLOW  ক্লিক করুন | 

DOWNLOAD > INSTALL > OPEN > ALLOW 

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম
  • পরবর্তী স্টেপটি হচ্ছে আপনি যখন সবগুলো ALLOW করবেন তখন আপনার সামনের নিচের স্ক্রীনশটএর মত চিত্র আসবে |  এই চিত্রটি আপনি দেখতে পাচ্ছেন উপরে বাম দিকের লগ ইন / রেজিস্টার login /Regrstation লেখা রয়েছে | আপনি ওই লগইন অথবা রেজিস্টার  বাটনে ক্লিক করুন | 
বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম
  • আপনি ওইখানে ক্লিক করলে আপনাকে লজিন অথবা রেগিস্ট্রেশন করতে বলা হবে |  রেজিস্ট্রেশন বাটনটিতে ক্লিক করুন | রেজিস্ট্রেশন বাটনটিতে ক্লিক করলে আপনি নিচের মত একটি চিত্র দেখতে পাবেন | এখানে নিউ বিকাশ একাউন্ট এর ফোন নাম্বার দিতে বলা হয়েছে |  আপনি এইখানে আপনার ফোন নাম্বারটি দিন |  ফোন নাম্বার দেওয়ার ক্ষেত্রে যে নাম্বারটি আপনার মোবাইলে এখন রয়েছে আপনি সেই নাম্বারটি দেওয়ার চেষ্টা করুন | অথবা এমন একটি ফোন নাম্বার দিন সেটি আপনি সবসময় ব্যবহার করেন |  মনে রাখবেন ফোন নাম্বারটি দেওয়ার পরে আপনার  দেওয়া নাম্বারে একটি ভেরিফিকেশন কোড যাবে | 
  • আপনি নাম্বারটি প্রবেশ করান এবং আপনার সিমের নামটি সিলেক্ট করুন |  এক্ষেত্রে আপনার কনফার্ম করার প্রয়োজন হবে সেজন্য আপনার সিমে একটি সংখ্যার ভেরিফিকেশন কোড যাবে আপনি এই ছয় সংখ্যার ভেরিফিকেশন কোড পরবর্তীতে প্রবেশ করান | আপনি চিত্রের মত একটি এসএমএস দেখতে পাবেন নোটিফিকেশন আকারে এই এসএমএসটি আসবে | 
  • আপনার মোবাইলে যদি কেউ চিমটি একটিভ থাকে তাহলে ভর্তি ভেরিফিকেশন অটোমেটিক হয়ে যাবে না হলে এই কোডটি আপনার বিকাশে প্রবেশ করান এবং সাবমিট এ ক্লিক করুন | 
  •  এরপরে আপনার সামনে ভাষা  পছন্দ করার একটি অপশন আসবে |  আপনার যদি বাংলা ভাষা ভালো লাগে তাহলে আপনার বাংলা ভাষা সিলেক্ট করুন এবং ইংরেজি ভাষা ভালো লাগলে ইংরেজি ভাষা সিলেক্ট করুন | 
  • পরবর্তী স্টেপে আপনার সামনে বিকাশের কিছু ডান্স এন্ড কন্ডিশন আসবে সেগুলো আপনি একটু পড়ে নেবেন এবং পরবর্তী অংশ নিয়ে চলে যাবেন | 
  • এরপরে আপনার সামনে স্ক্রীন রেকর্দের একটি অপশন আসবে আপনি ALLOW বাটনে ক্লিক করুন | 
  • এখন আপনার সামনে আপনার এনআইডি কার্ডের ছবি দেওয়া হবে | আপনার এনআইডি কার্ড আপনার সামনে রেখে আপনি আপনার মোবাইলের ক্যামেরা দিয়ে এনআইডি কার্ডের সামনের অংশের একটি ছবি তুলুন এবং এই ছবিটিকে সাবমিট করুন | সব সময় একটি স্পষ্ট ছবি তোলার চেষ্টা করুন | 
  • আপনার এনআইডি কার্ডের সামনের অংশটি ছবি  সাবমিট করার  পরে আপনার   এনআইডি কার্ডের পিছনের অংশটিও ছবি চাওয়া হবে তখন আপনি আগের মত একটি ছবি  আপনার মোবাইলের ক্যামেরা দিয়ে করুন  এবং সাবমিট করে দিন | 
  • পরবর্তী পদক্ষেপের আপনি  আপনার এনআইডি কার্ডের সমস্ত তথ্য লেখা আকারে দেখতে পারবেন | যদি এগুলোতে কোন সমস্যা হয় তাহলে আপনি এটি পরিবর্তন করুন | এবং পরবর্তী পদক্ষেপে চলে যান | 
  • পরবর্তী পদক্ষেপে আপনার কাছে আপনার ইনকাম এর উৎস চাওয়া হবে | আপনি যেভাবে ইনকাম করেন সেগুলো থেকে আপনার পছন্দের  অপশনটি সিলেক্ট করুন এবং পরবর্তী পদক্ষেপে চলে যান | 
  • পরবর্তীতে আপনার মান্থলি ইনকাম সম্পর্কে একটি তথ্য চাওয়া হবে | আপনার মান্থলি ইনকাম সম্পর্কিত তথ্য বিকাশ একাউন্টে প্রবেশ  করুন | 
  •  এখন আপনার সামনে আপনার সেলফি করতে বলা হবে | আপনার সেলফি টি যেন খুবই পরিষ্কার হয় এবং এনআইডি কার্ডের যেরকম রয়েছে সেই রকম চেহারা দেওয়ার চেষ্টা করুন |  তাহলে খুব তাড়াতাড়ি ভেরিফিকেশন টি কমপ্লিট হয়ে যাবে | 
  • আপনি যদি পদক্ষেপগুলো অনুসরণ করেন তাহলে  48 ঘন্টার ভিতরে আপনার অ্যাকাউন্টটি অ্যাকটিভ হয়ে যাবে এবং আপনি সম্পূর্ণ লেনদেন করতে পারবেন | 

 এই সম্পর্কিত একটি ভিডিও আপনি দেখতে পারেন নিচের ভিডিওটি থেকে |  তাহলে আপনি আরো  প্রাক্টিক্যালি বুঝতে পারবেন |

গান ডাউনলোড করার ওয়েবসাইট – ভিডিও গান ডাউনলোড করার ওয়েবসাইট

sunny leone Laila main Laila Song download video, audio & DJ

ভিডিও গান অডিও করার সফটওয়ার – জনপ্রিয় পাঁচটি সফটওয়্যার ডাউনলোড

Leave a Reply

Anysoll

We The Group of anysoll.com website. We publish  All-time update news. Mainly we publish Movie news, Hero and heroine news, Cricket news, Upcoming movie news, celebrity news, sports news, politics news and more news. like our Facebook group and page.